সিগারেট খোর বউ – Ek bangla love golpo 2022

Share this post

আজকের আলোচনার বিষয় হচ্ছে সিগারেট খোর বউ মেয়ে নাটক – Ek bangla love golpo 2022 . তো বন্ধুরা এই পোস্টে জানতে পারবেন যে ……. যদি এখানেই যেনে জাবেন তো গল্প টি কখন পড়বেন আপনার । তাই গল্প টিতেই জেনে নিন…

বাসর ঘরে ঢুকতেই আমার বউ বলল –
আমি কি একটা সিগারেট খেতে পারি ?
আমি কথাটা শুনেই বউয়ের দিকে অবাক চোখে দৃষ্টিতে তাকিয়ে রইলাম এরপর আমার বউ আমতা আমতা করে বলল –
Wife :- ইয়ে মানে আপনার যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে আমি বাইরে গিয়ে খেয়ে আসি ?
Husband :- না আপনাকে বাইরে যেতে হবে না আপনি এখানে থেকে খান আর আমাকে একটা সিগারেট দেন ।
এরপর আমার বউ আমার দিকে অবাক হয়ে তাকিয়ে থেকে বলল ।
Wife :- আপনি ওকে সিগারেট খাবেন ।

Husband :-হ্যাঁ খাবো আপনাকে কোন সমস্যা আছে ।
Wife :- are you serious ?
Husband :- আপ কো সিরিয়াস আপনি যখন খেতে পারেন তবে আমি কেন পারব না সেটা খেতে ।
Husband :- এই কথাটা বলে আমি এবার চুপ হয়ে গেলাম কারণ আমি সিগারেটের গন্ধ একদম সহ্য করতে পারি না ।
এই মুহূর্তে আমি কি করবো ঠিক কিছু বুঝতে পারছিলাম না মেয়েটা সর্বদা তার দৃষ্টি আমার ওপর লাগছে একটু পরে আমি তাকে বললাম –
সিগারেট খেলে কি হয় আপনি জানেন ?
Wife :-হ্যাঁ আমি জানি ।
Husband :- আপনি জানেন তাও আবার খান কেন ?
Wife :- ভালো লাগে তাই খাই ।
Husband :- শুধু কি তুমি ভালোলাগার জন্য খাও ।

Bangla Love Golpo


Wife :- না
Husband :- তবে ?
Wife :- নিকোটিনের ধোয়ায় মনের কষ্টগুলো পুড়িয়ে দেওয়া যায় তাই ।
Husband :- এভাবে কি একেবারে কষ্ট চলে যায় ।
Wife :-না যায় না তবে যখনই এটা খায় তখনই কিছুটা কষ্ট আমি ভুলে থাকতে পারি ।
Husband :- কষ্টটা কি শুধু আপনি একাই পান ? Wife :- আমি জানিনা তবে আমার কষ্টটা সীমাহীন ‌।
Husband :-আমরা ছেলেরা কষ্ট পেলে কি করে জানেন?
Wife :- হ্যাঁ জানি তো কি আর করে না আপনারা তো চাইলে আমাদের মত কান্না করতে পারে না বরং আপনাদের নিজেদের সব কষ্ট লুকিয়ে রাখতে হয় ?
Husband :- আপনারা শুধু এটা দেখেন যে আমরা শুধু নিজেদের কষ্ট লুকিয়ে রাখতে পারি তাইতো যাইহোক সিগারেট খেলে যদি সব কষ্ট দূর হয়ে যেত , তবে আপনার মত প্রত্যেক মেয়ে সিগারেট খেত ।
Wife :- আমার মত কষ্ট আপনি কখনো পেয়েছেন । ( Bangla Love Golpo )


Husband :- কিসের কষ্ট এত আপনার ?
Wife :- আমাকে একজন ছেড়ে চলে গেছে । কথা দিয়ে কথা রাখে নিই, তাই আর কি ……. ।
Husband :- হাহাহাহাহা
Wife :- আপনি হাসছেন কেন ?
Husband :- আপনার এই সব কথা শুনে ।
Wife :- আমি কি ওই রকম কথা বলেছি ।
Husband :- কেউ ছেড়ে চলে গেছে যেতেই পারে এর জন্য কষ্ট হতেই পারে, তাই বলে সিগারেট খেতে হবে এটাতো কোনো মানে নেই ।


Wife :- দেখুন আপনি আমার ব্যাপারে এখনো পর্যন্ত কিছুই জানেন না ।
Husband :- আপনার যদি না বলেন তাহলে আমি কি করে জানবো সেটা আপনি না বললেও চলবে ।
Wife :- সেটা আপনার না জানলেও চলবে ।
আমি এই বলে রাগে দুঃখে দাঁত কমর করে রুম থেকে বেরিয়ে ছাদে চলে আসলাম । এর পর একটা সিগারেট জ্বালিয়ে টান দিতে থাকলাম । হঠাৎ আমার কাঁধে কারো হাতের স্পর্শ অনুভব করলাম পিছনে ফিরে তাকালাম ।
একি আপনি আপনি এখানে এসেছেন কেন ?
Husband :-কেন ,আমি কি আসতে পারি না বুঝি ?
Wife :-আমি আর কিছুই বলছি না চুপচাপ সেক্রেট ট্রেনেই যাচ্ছি একটু পরে আমি তাকে বললাম ।
আপনি ফ্রেশ হয়ে গিয়ে ঘুমিয়ে পড়ুন ।
Husband :- আমি একা একা কিভাবে ঘুমাবো ? ( Bangla Love Golpo )

Wife :- আমি জানিনা ।
Husband :- আপনি না গেলে আমিও যাব না ।
Wife :- আপনি পাগলামি করবেন না আজ আমার আর ঘুম আসছে না ।
Husband :-কেন ?
Wife :-ওকে খুব মনে পড়ছে ।
Husband :-আমি একটা কথা জিজ্ঞেস করবো ।
Wife :-কী ?
Husband :- তুমি রাগ করবে নাতো ।
Wife :- আমাকে দেখে কি খুব বেশি লাগে মনে হয় ।
Husband :- না আসলে আপনার লাইফে অন্য কেউ ছিল, তাই না ?
Wife :- হুম
Husband :- আপনার জীবনের গল্পটা আমাকে শোনাবেন কি হলো চুপ করে আছেন যে ।
Wife :- আমার কিছু ভালো লাগছেনা ।( Bangla Love Golpo )


Husband :- শুনুন হৃদয়ে জমানো চাপা কষ্ট কাউকে শেয়ার করলে মন হালকা হয় ।
Wife :-হবে হয়তো ….
Husband :- তাহলে শেয়ার করুন আমার সাথে ।
Wife :-অন্য একদিন বলব আপনাকে ।
Husband :- না আজকে বলেন ।
Wife :- এখন কি আপনি আমাকে জোর করে বলাবেন নাকি ?
Husband :-আচ্ছা আমি কি খুবই বেশি খারাপ ?
Wife :- না
Husband :- হয়তো আমাকে আপনার পছন্দ হয়নি তাই তো যদি আমার সাথে না থাকতে চান তবে বলে দিন ডিভোর্স দিয়ে দেবো তাহলে তো আপনার সুবিধা হয় , তাই না ।
Wife :- সুবিধা হয় মানে কি বলতে চান আপনি (রাগান্বিত স্বরে ) গার্লফ্রেন্ডের সাথে বিয়ে করতে সুবিধা হবে আরে জানি জানি তো । ( সিগারেট খোর মেয়ে বউ )


Husband :- কি দেখুন আপনাকে আমি আগেই বলেছি যে আমার কোন গার্লফ্রেন্ড নাই ।
Wife :- আমি আর ওনাকে কিছুই বললাম না চুপ করে রইলাম ছেলেটা ঠিক কী করবে বুঝে উঠতে পারছে না অতঃপর আমাকে ডিলিট করানোর জন্য তানভীর আমার হাত ধরে বলল ‌ ।
Husband :- প্লিজ বিলিভ মি ! আমার কোন জিএফ নেই । আমি সব সময় চেয়েছি যে ,যার সাথে আমার বিয়ে হবে সেই হবে আমার জিএফ ।
আর তার সাথে আমি প্রেম করবো আমি দেখেছি আমার বন্ধুরা একটার পর একটা রিলেশন করেছে ছেকা খেয়েছে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছে কত নং ন্যাকামি করে আমার এইসব একদমই ভালো লাগে না ।
Wife :- হ্যাঁ বুঝলাম ।
Husband :- এবার আপনার বিশ্বাস হয়েছে তো ।
Wife :- হ্যাঁ একটু একটু ।
Husband :- কি।


Wife :- না কিছুনা এবার আপনি ফ্রেশ হয়ে আসুন ।
Husband :- হ্যাঁ তবে একটু ওয়েট করুন, আমি ফ্রেশ হয়ে কফি বানিয়ে আনছি । কফি খেতে খেতে আপনার জীবনের সব গল্প শোনা যাবে ।
Wife :- এই বলে এক দৌড় দিয়ে তানভীর ছাদে থেকে চলে গেল ছেলেটার পাগলামি দেখে নিজের অজান্তে আমার মুখের কোনো হাসি চলে আসলো ।
কেমন বাচ্চাদের মত স্বভাব পারিবারিকভাবে আমাদের বিয়ে হয়েছে প্রথমে রাজি হইনি কিন্তু মা বাবার প্রশান্ত হাসিটা ধরে রাখতে একপ্রকার চাপে পড়ে আমি বিয়েটা করেছি ।
ওর নাম তানভীর চেহারাটা একেবারে রাজকুমারের মত যে কোন মেয়ে দেখলে প্রেমে পড়ে যাবে প্রথমে দেখে আমিও একটু থমকে গিয়েছিলাম । ( সিগারেট খোর মেয়ে বউ )

bangla golpo love story, romantic love story bangla, bangla golpo love story, romantic story bangla, short love story bangla, sad bangla story, love story golpo bangla, romantic story in bangla, prem story bangla, story bangla love, romantic love story golpo, real love story bangla, bangla romantic short story, love story golpo romantic, love golpo bangla,
Bangla Golpo Love Story


তাই আমি আমার মা বাবাকে বলেছিলাম যে এত সুন্দর চেহারা ছেলে কোথাও না কোথাও নির্যাতনে আছে বিয়ের পরে সে ভেগে যাবে ।
কিন্তু সবাই বললো যে আসলেই ছেলেটার কোন রিলেশন নেই ।আমিও কিছুতে বিশ্বাস করলাম না ।
অফ আপনাদের কথা বলা হয়নি আমার নামটা হচ্ছে রিয়া বিয়ের আগে তানভীর লজ্জালজ্জা মুখ করে জিজ্ঞেস করেছিলাম।
আচ্ছা একটা কথা বলব ?

Husband :- জি বলেন ।
Wife :- আপনার কটা গার্লফ্রেন্ড আছে ।
দেখলাম তানভীর রাগী লোক নিয়ে দাঁত করমর করতে করতে বলেছিল ।

Husband :- আপনার কি মনে হয় যে আমি দশ বারোটা গার্লফ্রেন্ড নিয়ে ঘুরি ?
Wife :- আপনি এত সুন্দর দেখতে গার্লফ্রেন্ড তো থাকারি কথা ।
Husband :- তোকে আমি জানি আমি অনেক সুন্দর দেখতে অনেক মেয়ে আমার পিছনে ঘুরে কিন্তু আমি কাউকে পাত্তা দেয় না ।
Wife :- কেন আপনি পাত্তা দেন না ।
Husband :- আপনাকে বলব কোনো একদিন ।
Wife :- এই বলে তানভীর আমার কাছ থেকে পালিয়ে গিয়েছিল । আমি ভেবেছিলাম, যে ওর সাথে আমার বিয়ে হলে নিশ্চয়ই পরের দিন কারো হাত ধরে চলে যাবে ।
অবশ্য আমিও সেটাই চাই কিন্তু ছেলেটার হাবভাব দেখে তেমন কিছু মনে হয়না ওই তো তানভীর ফ্রেশ হয়ে কফি হাতে নিয়ে চলে এসেছে । ( সিগারেট খোর মেয়ে বউ )

কিন্তু হাতে দেখছি এক কাপ কফি তানভীর কে জানে না যে আমিও কফি খেতে পছন্দ করি কি স্বার্থপর শুধু নিজের জন্যই বানিয়ে নিয়েছে অতঃপর আমি তানভীর তখন বললাম ।
আপনি কি একাই কফি খাবেন ।
Husband :- না আপনি এত খাবেন ।
Wife :- তাহলে এক কাপ কেন ?
Husband :- হাহাহাহাহা
Wife :- আবার কি হলো হাসছেন কেন ?
Husband :- আপনি কি কিছুই বোঝেন না নাকি ?
Wife :- কি বুঝবো আমি ।
Husband :- আমি এক কাপ কফি এনেছি কারণটা… । কি বলবো ।
Wife :-হ্যাঁ বলেন ।( সিগারেট খোর মেয়ে বউ )


Husband :- উফ ! কারণটা হচ্ছে যে দুজনে এক কাপে খাবো ।
Wife :- এই বলে তানভীর খিলখিল করে হাসতে লাগলো আমি ওখানে একটা মুচকি হেসে আর একটা সিগারেট ধরাতে যাব, তখনই তানভীর আমার হাতটা ধরে বলল-
Husband :- প্লিজ আজ আর খাবেন না অন্তত আমার জন্য প্লিজ সিগারেটের গন্ধ আমার একদম সহ্য হয় না ।
Wife :- ওর মুখের দিকে তাকিয়ে কেন জানিনা আমি থমকে গেলাম সিগারেট ধরাতে গিয়েও ধরালাম না ওকে যতটা দেখছি আমি ততই অবাক হচ্ছি ।
এদিকে না খেয়েও আমি থাকতে পারছি না অতএব আমি আর কি করবো তা বুঝে ফেলার আগেই তানভীর বলল –
Husband :- আচ্ছা আপনার যদি সমস্যা হয় তবে আপনি খান । আমি না হয় কিছুক্ষণের জন্য দমবন্ধ করে রাখবো ।
Wife :- হোয়াট দমবন্ধ করে আবার থাকা যায় নাকি ?
Husband :- কি আর করব আপনি তো—
Wife :-আচ্ছা ঠিক আছে আমি আর খাব না ।
Husband :- কি বললেন সত্যি ।
Wife :- হুম ( সিগারেট খোর মেয়ে বউ নাটক )

bangla love story golpo, bangla golpo love, bangla valobashar golpo, romantic bangla golpo, bangla golpo romantic, valobasar golpo bangla, bangla golpo love story, valobasar romantic golpo 2022, valobasar story, love story bangla golpo, love story golpo love story golpo, valobasar love story, Senior madam jokhon bou,
bangla love story golpo

Husband :- ভেরি ইন্টারেস্টিং আপনার গল্প তো একটু খুলে বলুন না, প্লিজ ।
Wife :- আমি এবার দীর্ঘ শ্বাস ফেলতে ফেলতে বললাম –
আমি যখন ক্লাস নাইনে পড়তাম তখন একটা ছেলেকে ভাল লেগে যায় আমার ছেলেটির নাম ছিল রাহুল । দেখতে খুব একটা সুন্দর না হলেও তাকে দেখতে বেশ মায়াবী লাগতো ।
ও সবসময় পরিপাটি হয়ে এসকুলাস তোকে ভালো লাগার বিশেষ কারণটা ছিল ওর চুপচাপ স্বভাবের জন্য ও অন্য আর পাঁচটা ছেলের মত না ।
ক্লাসে স্যার এর দিক ছাড়া আর অন্য কোথাও মনোযোগ দিত না ক্লাসের সব পড়া সবার আগে দিত পরীক্ষা গুলো তো বেশ ভালো রেজাল্ট করতো ।
এক কথায় মেধাবী ছেলে ক্লাস শুরু হলে মাথা নিচু করে ঢুকতো আবার ক্লাস শেষ হলে মাথা নিচু করে বের হতো ।
সে রাস্তায় কারো দিকে চোখ তুলে তাকাতেও কোন পর্যন্ত ওর সব কিছুই আমাকে যেন চুম্বকের মতো টানছে থাকে । ( Bangla Love Golpo )

Husband :- তারপর কি হলো ।
Wife :- স্কুল গেটের সামনে আমি রয়েছি দাঁড়িয়ে থাকতাম আসলে আমি ওকে দেখার জন্য দাঁড়িয়ে থাকতাম ঠিকই বুঝতে পারছ কিন্তু চোখ তুলে তাকানোর সাহস পেত না ।
হয়তো সহজে থেকে লজ্জাটাই বেশি পেত প্রায় ছয় মাস ধরে ওকে ফলো করার পর একদিন প্রথম চিঠি পেলাম ।
চিঠি দেওয়ার কৌশল টা ছিল এরকম যে আমি স্কুলগেটে ওর জন্য অপেক্ষা করছি, আর ও গেট থেকে বেরিয়ে একটা মচকানো কাগজ ফেলে দিয়ে যায় ।
সঙ্গে সঙ্গে আমি বুঝে যাই হয়তো এটা কোন বাধ্য হবে আমি কাগজটা হাতে নিয়ে একটা দূরে স্কুলের পিছনে থাকা আম বাগানে চলে যাই ।
এরপর আমি চিঠিটা খুলে দেখলাম যে ওটা লেখা ছিল –
Boy – এই মেয়ে আপনি এভাবে রোজ দেখার দাঁড়িয়ে থাকেন কেন ?

Wife :- লেখাটা পড়ার সাথে সাথেই আমার বুকটা কেন ধুক করে উঠেছিল এই মুহূর্তে আমার কি করা উচিত ঠিক আমি বুঝে উঠতে পারছিলাম না ।
এমনকি আমি কি উত্তর দিব সেটা ভেবে পাচ্ছি না কাউকে কোনদিন চিঠি লেখার অভিজ্ঞতা ও আমার নেই এদিকে আবার কাউকে কিছু বলার সাহস পাচ্ছিনা আমি ।
অনেক ভেবে আমি আমার এক কাছের বান্ধবী কে চিঠি টা দেখালাম অতঃপর পরামর্শ দিলে আমি ওকে ভালোবাসি এটা লিখে দিতে ।
এরপর আমি বললাম আমি পারবো না আমার দ্বারা এসব হবে না আমার ভয় হচ্ছে যদি স্যারকে দিয়ে দেয় তাহলে আমাকে টিসি দিয়ে দেবে ।
না বাবা থাক আমি বরং ওকে দূর থেকেই থাকে যাবে তারপর আমার বন্ধু বলল –
Girl – দেখ ভীতু দেখেছি কিন্তু তোর মতন এত ভীতু একটা দেখেনি আরে কিচ্ছু হবে না ,প্রেম করলে একটু ঝুঁকি তো নিতেই হয় । ( Bangla Love Golpo )

Wife :- ও কিছুটা সাহস দেওয়ার পর আমি ঠিক করলাম যে চিঠির উত্তর দেবো এরপর রাতে সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়ল ।
তখন আমি চট করে ডাইরেক্ট একটা ছেলে তাতে লিখতে বসে যাই আমি আমার গল্প থামিয়ে দিলাম । একটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে ফেলতে বললাম –
কফিটা সুন্দর হয়েছে ।
Husband :- সত্যি আপনি কি যে বলেন না ।
Wife :- হুম , নরমালি আমার নিজের হাতের কফি খেতে ভালো লাগে তবে আজ একটু অন্যরকম ভাললাগা খুজে পেয়েছি ।
Husband :- কিরকম ।
Wife :-লজ্জা করছে আমার ।
Husband :- লজ্জা এতে আবার লজ্জা কিসের ।
Wife :-মানে এই প্রথম কারো সাথে এক কাপ কফি খাচ্ছে তাই ।
Husband :- তাই নাকি।
Wife :- হ্যাঁ স্যার তাই । ( Bangla Love Golpo )

Follow Facebook page – https://www.facebook.com/Chhota-golpo-109362014762389/
Follow instagram – https://www.instagram.com/chhotagolpo/
Follow linkedin page – https://www.linkedin.com/in/mister-sujan-a568a6161


Husband :- আর একটা জিনিস ।

আপনি কি ঠোঁটের যত্ন একেবারে নেন না।
Wife :- কেন বলুন তো।
Husband :- কফির কাকে চমক দেওয়ার সময় আপনার ঠোঁটের ছোঁয়া পাচ্ছিলাম তাই মনে হল ।
Wife :-আমি এবার হো হো করে হেসে উঠলাম সত্যি খুব খুশি লাগছে আজ । ওর প্রত্যেকটা কথায় আমি যেন নিজেকে হারিয়ে ফেলেছি ।
প্রথম বাসর রাতটা যে এভাবে কাটাবো কখনো ভাবি নি আমি খুব রোমান্টিক একটা ছেলে আমার ফিলংস গুলো ওকে বলতে পেরে খারাপ লাগছে না ।
বরং আমি শান্তি পাচ্ছি আবার ঘোর কাটিয়ে দিয়ে তানভীর আবারো বলে উঠলো ।
Husband :- তারপরে কি হলো সেই গল্পটার বলবেনা ।
Wife :- হুম, লেখার সময় আমার হাত থরথর কাঁপছিল আর যত নেগেটিভ চিন্তাভাবনা আছে সব আমার মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিলো । ( Bangla Love Golpo )


কি আর করবো বলুন মুখে পাওয়ার জন্য সব সাহস করে চিঠি উত্তর লিখে ফেললাম ।
Husband :- উত্তরটা আপনি কি লিখেছিলেন ।
Wife :- লিখেছিলাম যদি বলি তোমাকে দেখার জন্য ।
Husband :- হাহাহাহাহা
Wife :- আপনি হাসছেন কেন ?
Husband :- এই সামান্য লেখাটা লিখতে গিয়ে এই অবস্থা ?
Wife :- আমি ভীতু টাইপের ছিলাম তাই সব কিছুতেই ভয় পেতাম ।
Husband :- কি আমার প্রেমিকা নারী রে । হাহাহাহাহা আচ্ছা তারপর কি হয়েছিল সেটা কি দিতে পেরেছিলেন তো ‌?
Wife :-হ্যাঁ তবে অনেক কষ্টে চিঠি দিতে গিয়ে মনে হচ্ছিল যে হে বুঝি কেউ দেখে ফেলবে যদি এবার কেউ দেখে ফেলে তাহলে আমি শেষ কি আর করা,
তাও কিভাবে যেন সবার চোখ এড়িয়ে যেত তা দিতে পেরেছিলাম চিঠি দেওয়ার পর সেও আমাকে উত্তর দেয় ।


আবারো সেই স্কুল পিছনের আম বাগানে গিয়ে চট করে চিঠিটা পড়ে ফেলি বিশ্বাস করুন ওই চিঠিটা পড়ার পর আমি ভয়ে 7 দিন স্কুলে যায়নি ।
Husband :- কি সাতদিন ও মাই গড ।
Wife :- শুধু এটা না আমার খাওয়া-দাওয়া সব কিছু বন্ধ হয়ে গেছিলো শুধু খাওয়া নাও গোসল করা আর ঘুমের জন্য বাসায় যেতাম ।
আর সব সময় বাইরে থাকতাম এককথায় পলাতক আসামির মতো থাকতাম । ( Bangla Love Golpo )

Husband :- কিন্তু কেন এরকম ব্যাপার,
Wife :- ওই চিঠির ব্যাপারে
Husband :- কি এমন লেখা ছিল যে আপনি এভাবে থাকতেন।
Wife :- সেদিনের কথা মনে পড়লে আমি নিজেই হেসে ফেলি নিজেকে কেমন যেন বোকা বোকা লাগে ।
Husband :- আরে ,বলেন তো।
Wife :- সেই চিঠিতে লেখা ছিল তাই বুঝি দাঁড়ান আপনার খবর আছে আমি কালকে হেড স্যারের কাছে আপনার নামে নালিশ দিবো, আর এই চিঠিটাও দেখাবো ।
ব্যাস এরপর থেকেই আমার প্রতিক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছিল কিযে আতঙ্কিত ছিলাম আমি শুধু আমি জানি অন্যদিকে তানভির আমার এই কথা শুনে হো হো করে শুধু হেসেই যাচ্ছে ।

আর ফাঁকে-ফাঁকে কফির কাপে চুমুক দিচ্ছে ছেলেটার কফি খাওয়া খুব ইন্টারেস্টিং কেমন বাচ্চাদের মত খায় চমক দেওয়ার সময় আবার ফু দিয়ে খায়, সত্যি খুবই ইন্টারেস্টিং লাগলো আমার ।

Husband :- তারপর কি হলো বলেন না আপনি থেমে কেন যাচ্ছেন?
Wife :-তার পর সাত দিন পার হয়ে যাওয়ার পর আমি ওই বন্ধুর কাছে জানতে পারলাম যে ছেলেটা কোন নানিসি দেয়নি বরং সব আগের মত স্বাভাবিক ছিল ।
আর আমাকে নাকি ওই ছেলেটা খুঁজছে তখন আমি যেন বাকরুদ্ধ হয়ে গেছিলাম । এসব কি হচ্ছে আমার সাথে আমি কি করবো তখন আর বুঝতে পারছিলাম না ।
তখন ভয়ে ভয়ে আবার আমি স্কুলে যাওয়া শুরু করি এতদিনে স্কুল কামাই দিয়েছে বলে স্যার সবার সামনে কান ধরে দাঁড়িয়ে রেখেছে। সেদিন স্যার বলেছিল আমাকে-

Teacher :-ওই মাইয়া এত দিনে স্কুলে আসিস নাই কেন বাড়িতে এসে ঘোড়ার ঘাস কাটিস । আজ সকালে তোর বাপের সাথে রাস্তায় দেখা হয়েছিল তোর কাছে তোর নামে নালিশ দেখছি আজকে বাসায় যাস খালি,…..। ( Bangla Love Golpo )

Wife :- এইতো যা ভয় পাচ্ছিলাম । তা ঠিকই আমার এদিকে গেল ওদিকে গেল একে তো একটা মেয়ে হয়ে সবার সামনে কান ধরে আছি ।
আবার বাসায় গেলে বাবার হাতে উত্তম-মধ্যম খাওয়ার থেকে আমাকে কেউ বাঁচাতে পারবে না আর এই দিকে ইসমাইল আমার করুন অবস্থা দেখে মুখ লুকিয়ে হাসছে ।
এরপর আমিও রাগে-দুঃখে দাঁতের কামড় করে মনে মনে বললাম শালা চেংরা তুতু চামড়া তোর জন্য আজ আমার এই অবস্থা আর তুই হাসছিস ?

Husband :- তারপর কি হলো
Wife :-এরপরে ইসমাইল বুঝে গিয়েছিল যে ওর জন্যই আমার এই দশা । তাই স্কুল আসলেও আমি আর ওর জন্য গেটের সামনে দাঁড়িয়ে থাকতাম না ।
সেদিনের ঘটনার পর থেকে ও প্রায় আমার দিকে তাকিয়ে থাকতো মাঝে মাঝে ওর চোখে চোখ পড়ে যেত আর যখনই চোখ পড়তো, মনে হত যে আমাকেও কিছু বলতে চাই ।
হয়তো সেই ছেলেটা ভুল বুঝেছে এখন সরি বলতে চাই আমিও আর ওর দিকে ইন্টারেস্টিং দেখায়নি আগের মত চুপচাপ থাকি আর পড়াশোনাই মন দিই ।
এভাবে দুদিন যাওয়ার পর আমি অংক বইয়ের মাঝে একটা চিঠি পেলাম চিঠি টা পেয়ে খানিকটা অবাক হয় এতে যা লেখা ছিল যা আমি স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারিনি ।
এককথায় জাস্ট আমি নিস্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলাম বুকের মাঝে ধুকপুকানি শুরু হয়ে গেছিল আমার মাই হার্ট লিপস উইস জয় ।

Husband :- বাহ কি ইন্টারেস্টিং কি লেখা ছিল এখানে বলেন তো আমার আর ধৈর্য সীমা থাকছে না এ কথাগুলো শোনার জন্য প্লিজ তাড়াতাড়ি বলুন ।
Wife :-আমি আবার কফিতে চুমুক দিতে যাবো ঠিক তখনই দেখে কাপ ভাঙ্গা এরপর তানভীর বলল –
Husband :- ও সরি আমি এক্ষুনি আর একটা কাপ কফি বানিয়ে আনছি এক দূরে যাব আর আসব তারপর শুনবো চিঠিতে কি লেখা ছিল আর হ্যাঁ ভুলেও কিন্তু সিগারেটে হাত দেবেন না ।
Wife :-আমি মুচকি হেসে মাথা নাড়িয়ে সম্মতি দিলাম ছেলেটা সত্যি তাড়াহুড়ো করে সিঁড়ি বেয়ে নিচে নেমেছে এরপর আমি বলে উঠলাম ।


এ পড়ে যাবেন তো আপনি আস্তে আস্তে জান ।
যাই হোক প্রিয় ভাইয়েরা শেষ চিঠিতে কি লেখা থাকতে পারে তা আপনা অনুমান করতে পারেন দয়া করে আপনারা কমেন্ট করে নিচে জানিয়ে যাবেন যে চিঠিতে কি লেখা ছিল আর আপনাদেরকে মুখ ফুটে বলে বোঝাতে পারবো না ।

মনে করুন যে এটা আপনাদের জন্য একটা সারপ্রাইজ রয়ে গেল যে যার মতামত অবশ্যই নিচে কমেন্ট করে জানাবেন ।


Share this post

1 thought on “সিগারেট খোর বউ – Ek bangla love golpo 2022”

Leave a Comment

x