Jor Kore Biye heart touching love story in bengali 2022

Hallo friend ajker alochonar bisoy hochhe Jor kore biye really heart touching love story in bengali . Valo meyeke biyer Biyer por koto otachar dekhun ek very heart touching short stories in bengali language . Tar pore jante parber je meyetake …. Are dada sob jodi ekhanei jene jaben to golpo ta kokhon porben . Ajker ei bengali heart touching love story dekhte thakun . Are amader comment kore janaben ajker valobasar romantic premer golpo bangla ti kamon hoyeche .

heart touching love story in bengali

heart touching love story in bengali, heart touching love story bangla, heart touching love story in bengali language, bengali heart touching love story, heart touching short stories, short touching story, heart touching love story, heart touching romantic love stories,
heart touching love story in bengali

হ্যালো বন্ধুরা আজ আমার বাসর রাত হঠাৎ বিয়েটা হয়ে গেল । কিন্তু আমি এই বিয়ে কোর্টে কিছুতেই রাজি ছিলাম না জানিনা আমার বিয়ের খবর শুনে আমার রিয়া এখন কি অবস্থা । রিয়াকে ফোন পাচ্ছি না আবার কখনো কোনো অঘটন ঘটিয়ে ফেলে নাই তো ।
আমি এইসব মনে মনে ভাবছি । হঠাৎ পিছন থেকে মা এসে বলতে লাগলো ।
কিরে বাবা তুই বাসর ঘরে নাকি এখনো ছাদে কি করছিস !


তুমি কি যে বলোনা কিসের বাসররাত । আমি এই বিয়েতে কিছুতেই মানতে পারছি না । তোমরা আমার বিয়েটা দিয়ে আমার জীবনটা ছারখার করে দিয়েছো আমার ভালোবাসার মানুষকে থেকে আমাকে অনেক আলাদা করে দিয়েছো ।
আমরা যা করছি বাবা তোর ভালোর জন্যই করছি ।
মা আমি যাকে জীবনের থেকেও বেশি ভালোবেসেছি তার কাছ থেকে আমাকে আলাদা করে ভাল রেখেছো তোমরা । ( heart touching love story in bengali )


বাবা ওই মেয়েটা এক্কেবারে ভালো না তুই একবার বোঝার চেষ্টা কর ।
তুমি চুপ করো আমি তোমার কোন কথা শুনতে চাই না তোমরা কোনদিন আমার ভাল চাও নি ।

তারপর এক প্রকার রাগ নিয়ে বাসর ঘরের সামনে এসে দাঁড়ালাম ‌ । ও সরি আপনাদের তো পরিচয় দেওয়া হয়নি আমি শেখর নিজেদের একটা কোম্পানি দেখাশোনা করি যাই হোক তারপরে বাসর ঘরে ভেতরে গেলাম তারপর সোনালী বিছানা থেকে নেমে আমাকে সালাম করতে আসলো আমি পা সরিয়ে নিলাম ।


একি তুমি পা কেন সরিয়ে নিচ্ছো ?
আমি এই বিয়ে মানে না আর তোমাকে তো কিছুতেই বউ হিসাবে আমি মেনে নিতে পারব না খুব তাড়াতাড়ি তোকে আমি ডিভোর্স দিয়ে দেবো ।
বাসর রাতে নিজের স্বামীর মুখে এমন কথা শুনে চমকে গেল সোনালী ….
কি বলছ কি এইসব তুমি ?
যা বলছি ঠিক বলছি এখন সর আমার সামনে থেকে । ( heart touching love story in bengali language )

তারপর আমি রাগ দেখিয়ে বিছানায় গিয়ে শুয়ে পরলাম সোনালী বিছানায় ঘুমানোর জন্য আসলে আমি তাকে ধাক্কা মেরে বিছানায় ফেলে দিই ‌।
আ আয় আ আ ! ও মাগো মরে গেলাম আমার কোমরটা গেল । কোমরে খুব ব্যথা পেয়েছি ঢাকা কেন মারলে ?
তোকে আমি কতবার বলেছি তোকে আমি বউ হিসেবে মানি না তার পরেও কোন সাহসে আমার পাশে ঘুমাতে আসলি ।।

heart touching love story in bengali language

তাহলে আমি কোথায় ঘুমাবো ‍!
কেন ফলো রে রে ঘুমাবি ?
দেখো আমি কোনদিন ফ্লোরে ঘুমায় নাই ?
এখন থেকে তোকে ফ্লোরে ঘুমাতে হবে আর এটা প্যাকটিস করে নিবি । ।
তারপর আমি একটা বালিশ হলোরে ছুড়ে মারলাম কিছুক্ষণ পর সোনালী আমাকে বললো ..


এই যে শুনছেন !
আবার কি হলো তোমার ?
ফোলোরে খুব ঠান্ডা একটা কাথা দেবেন !
ধুর মাথা টাই গরম করে দিচ্ছে ।


তারপর আমি বিছানা থেকে নেমে সোনালি চুলের মুঠি ধরি ।
কি করছো তুমি খুব ব্যাথা লাগছে প্লিজ ছেড়ে দাও । ( heart touching love story bangla )


তারপর সোনালী চুলের মুঠি ধরে ফ্লোরে সাথে সোনালীর বাড়ি খাওয়ালাম যার ফলে সোনালীর মাথা ফেটে টপটপ করে রক্ত পড়তে থাকে । আমি তাকে পাত্তা না দিয়ে আবার বিছানায় গিয়ে শুয়ে পরলাম ।
সোনালী ঠান্ডায় ফ্লোরে জড়োসড়ো হয়ে শুয়ে আছে আর ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কান্না করতেছে তারপর ঘুমিয়ে পড়ে পরের দিন ঘুম থেকে উঠে দেখি সোনালী রুমে নাই তার মানে নিচে গেছে ।


হঠাৎ আমার চোখের দৃষ্টি পড়ে পড়ে লেগে থাকা রক্তের ওপর কিন্তু আমি তাতে কোনো পাত্তা দিলাম না যাই হোক তারপর ফ্রেশ হয়ে নিচে গিয়ে খাবার টেবিলে বসে খাওয়া শুরু করে দিলাম ।

কিছুক্ষণ পর বাবা এসে খেতে শুরু করে দিল একটু পর মা ও সোনালী ও এসে খেতে বসে পড়লো ।
মা আজকের এই খাবারগুলো কে রান্না করেছে গো?
আমার বউ মা রান্না করেছে ?


ছি ওয়াক থু এই জন্য বলি খাবারগুলো এত জঘন্য কেন লাগছে !
তখন বাবা বলে উঠলো কি বলছিস তুই খাবার গুলো তো খুব ভালোই হয়েছে ?
কি এইসব বাজে খাবার গুলো মুখে তোলা যায় না আর তুমি বলছ খুব ভালো হয়েছে ।( heart touching love story bangla )

তারপর আমি খাবারের প্লেট ছাচুরে মারলাম ।
কি করলি তুই এটা?
যা করেছি ভালই করেছি ।


তারপর বাসা থেকে বের হয়ে রিয়াকে ফোন দি কিন্তু কোনটা রিয়া না রিয়া মা ধরেছে । তখন রিয়ার মার কাছে শুনতে পেলাম যে রিয়াকে এখন হাস্পাতালে আছো তারপর আমি হাসপাতালে ছুটে গিয়ে দেখলাম যে রিয়া বেডে শুয়ে আছে । আমাকে দেখতে পেয়েছে বলতে লাগলো,

তুমি এখানে কেন এসেছো যাও তোমার বউয়ের কাছে যাও ?
আমি তোমার ভালোবাসার টানে এখানে এসেছি ।
তাহলে তুমি অন্য জনকে বিয়ে করলে কেন?

heart touching love story bangla


তুমি জানো না আমি বিয়েটা করতে চাইনি মা-বাবা জড়াজড়ি করে বিয়েটা আমাকে করিয়ে দিল ।
তারপর রিয়া আমার হাতটা শক্ত করে ধরে বলতে লাগলো….
শেখর আমি তোমাকে ছাড়া কিন্তু বাঁচবো না?
তুমি একেবারে চিন্তা করো না খুব তাড়াতাড়ি আমি সোনালিকে ডিভোর্স দিয়ে তোমাকে বিয়ে করব।

তারপর রিয়ার সাথে আরো কিছুক্ষণ কথা বলার পর বাসায় এসে আমার রুমে চলে গেলাম। একটু পরে সোনালী রুমে এসে আমাকে বলতে লাগলো…
কোথায় গিয়েছিলে তুমি?
আমি তোকে কেন বলব।
আমি তোমার বউ তাই জিজ্ঞেস করতেই পারি?

তারপর ঠাস করে দুটো থাপ্পর সোনালী গালে বসিয়ে দিলাম…
তোকে আমি কতবার বলেছি যে আমি এই বিয়ে মানি না । দ্বিতীয়বার যদি নিজেকে আমার বউ হিসেবে দাবি করিস তাহলে তোর একদিন কি আমার একদিন । ( bengali heart touching love story )


পরের দিন আমার মা-বাবা জরুরী কাজের জন্য আমাদের গ্রামের বাড়িতে যাই বিকালের মধ্যে চলে আসবে আমাকে বলে যাই । তাই আমি সোফায় বসে টিভি দেখছিলাম আর সোনালী চা বানিয়ে আমাকে দেওয়ার সময় বলে হাত থেকে চায়ের কাপটা আমার গায়ে পড়ে যায় ।
আমি ঠাস করে সোনালী এক থাপ্পর বসিয়ে দিই । সোনালী পড়ে যাই আর সোনালীর ঠোঁট কেটে রক্ত পড়তে থাকে,


কলঙ্কিনী তুই কি করলি এটা?
আমার ভুলে চায়ের কাপটা তোমার গায়ে পড়ে গেছে । প্লিজ দয়া করে মাফ করে দাও ।
তুই এটা ইচ্ছে করেই ফেলেছিস যাতে আমি গরমে পুরি ।

তারপর আমি সোনালী চুলের মুঠি ধরি ।
আআআ লাগছে তো ছাড়ো। ( heart touching love story in bengali language )
লাগার জন্যই তো ধরেছি কলঙ্কিনী চলে যাচ্ছিস না আমার জীবন থেকে ।
তারপর আমি সোনালীকে টানতে টানতে রান্না ঘরে নিয়ে গিয়ে একটা চামচ আগুনে গরম করলাম । তারপর গরম চামচটা সোনালীর হাতের সাথে চেপে ধরে তারপর সোনালী আআআআ জোরে করে চিত্কার করে দেয় ।

আমি গরম চা পাঁচটা কিছুক্ষণ সোনালীর হাতের সাথে চেপে ধরে ছেড়ে দিয় । আর সোনালী কান্না করতে করতে রুমে চলে যায় তারপর আমি সোফায় বসে রিয়াকে ফোন দেওয়ার সাথে সাথে সে রিসিভ করলো ….

কি করছো সোনা তুমি?
এইতো বসে আছি ।
বিকালে তুমি পার্কে চলে এসো ।
আচ্ছা জানু ।

heart touching short stories in bengali


ঠিক আছে আমার সোনা বায় ।
তারপর রিয়া ফোনটা কেটে দেয় রিয়ার সাথে কথা বলে মনটা ভালো লাগছে । আমার মা বাবা বাসায় ফিরে । এসে দেখে মা সোনালীর হাতের দিকে চেয়ে বলতে লাগলো …

একে সোনালী মা তোমার হাতে ছ্যাকা লাগলো কিভাবে ?
না মা ওই রান্না করার সময় একটু লেগে গেছে ।
সাবধানে কাজ কর্ম করবে তো নাকি?
………😔😔😔😔…
ওষুধ লাগিয়েছো ‌?


কি করে যে বলি তোমার ছেলে ওষুধ লাগাতে দেয়নি ।
কি বিরবির করছো তুমি মা ?
না কিছুনা ওষুধ লাগিয়েছি ?
হুমম ভালো করেছো !

বাবা মা আসার পরে আমি পার্কে চলে যাই । পার্কে গিয়ে দেখলাম একটা গাছের নিচে বসে বসে কার সাথে জানি কথা বলছে আমি রিয়া সামনে গেলে রিয়া ফোনটা কেটে দেয় ।
তুমি এসেছ শেখর? ( heart touching love story in bengali language )


হুমম ! কিন্তু তুমি এখন কার সাথে কথা বলছিলে ?
আমার এক বান্ধবীর সাথে?

ও জা বৃষ্টি চলে এলো । চলো আজ আমরা বৃষ্টিতে । ভিজি ।


না রিয়া আমি ভিজবো না শরীর খারাপ করবে ।
আরে করবেনা এসো ….
তারপর রিয়াজ জড়াজড়ি করাতেই বৃষ্টিতে ভিজতে হল অনেকক্ষণ বৃষ্টিতে ভিজে রিয়াকে তার বাসায় পৌঁছে দিয়ে আমি বাসায় চলে আসলাম । পরের দিন আমার ভীষণ জ্বর হলো । কিছুতেই বিছানা থেকে উঠতে পারছিনা ।


মা-বাবা ডাক্তারকে ফোন করে বাসায় আসতে বলে আর কিছুক্ষণ পর ডাক্তার এসে আমাকে দেখে চলে যাই । রাতে সোনালী আমাকে নিজের হাতে খাবার খাইয়ে দেয় । বাধ্যতামূলক খেতে হল কারণ নিয়ে আমি নিজের হাতে খাবার খেতে পারছি না । তাই সোনালীর হাতেই খাবার টা খেতে হল ।
রাতে আমার প্রচন্ড জ্বর বেড়ে গেল দেখে সোনালী সারারাত আমার মাথায় জলপট্টি দেয় সকাল সকাল আমার ঘুম ভেঙে এখন শরীরটা খুব ভালো লাগছে । হঠাৎ করে তাকিয়ে দেখি সোনালী এখনও ঘুমিয়ে আছে আর ঠাণ্ডায় কাঁপছে ।
কেন জানি তাকে দেখে আমার মায়া লেগে গেল । হঠাৎ ঘুম ভেঙে যায় সে ঘুম থেকে উঠে বলতে লাগলো…
তুমি উঠেছো ?
হুম ‌।

bengali heart touching love story


এখন তোমার শরীর কেমন লাগছে ।
অনেক ভালো লাগছে ।
তারপর সোনালী ফিরে এসে নীচে চলে যায় তারপর আমিও ফ্রেশ হয়ে নিচে গিয়ে খাবার টেবিলে বসে খাবার খেতে লাগলাম ।


তখন বাবা বলে উঠলো তোর শরীরের অবস্থা কেমন ?
হ্যাঁ বাবা অনেক ভালো আছে।
তারপর আবার আমি খাবার খেয়ে রিয়ার সাথে দেখা করতে চলে গেলাম ।


সে আমাকে জিজ্ঞেস করতে লাগলো তুমি কখন সোনালীকে ডিভোর্স দিবে ?
এইতো কিছুদিন পরে দিয়ে দেবো।
বিয়ে করেছ দেখি অনেকদিন হয়ে গেছে এখন তুমি সোনালি কা ডিভোর্স দাওনি কেন?
তারপর রিয়া একটা চাকু বের করে হাত কেটে ফেলে । রিয়ার হাত থেকে ফোঁটা ফোঁটা রক্ত মাটিতে পড়তে থাকে ।


কি করলে তুমি এটা ?
তারপর আমি রিয়ার কাটা স্থানে আমার হাত চেপে ধরলাম যাতে রক্ত না পরে?
তুমি কি পাগল হয়ে গেছো নাকি? (To bundhura amader ajker ashol Bhalobasa chinte na para really heart touching love story in bengali language a golpo ta kamon hoyeche niche comment kore janaben)


হ্যাঁ আমি পাগল হয়ে গেছি । ওই মেয়ে তোমার সাথে কেন থাকবে ওকে যত তাড়াতাড়ি পারো ডিভোর্স দিয়ে দাও ।
আচ্ছা ঠিক আছে এখন তো শান্ত হও এখন ডাক্তারের কাছে চলো ।
তার কোন প্রয়োজন নেই আমি আমার বাসায় গিয়ে ওষুধ লাগিয়ে নেব এখন আমাকে বাড়ি পৌঁছে দাও ।
তারপর আমি রিয়াকে স্যার বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে আমি আমার বাসায় চলে আসলাম বিকালে আমার রুমের মধ্যে ফোনে রিয়ার সাথে কিছুক্ষণ কথা বলে ফোনটা কেটে দিয় । তখন আমার বউ মানে সোনালী দেখে নেই।


তুমি কার সাথে কথা বলছিলে এখন?
আমি যার সাথে কথা বলি তাতে তোর কি?
ঘরে বউ রেখে তুমি অন্য মেয়ের সাথে কথা বলবে কেন ?

heart touching sad love story in bengali

অন্য মেয়ে কাকে বলছিস তো আমার হবু বউ কিছুক্ষণ পর ওকে বিয়ে করব আর তোকে ডিভোর্স দিয়ে দিব আমি ।
হঠাৎ আবার রিয়া ফোন দিলো । কিন্তু ফোনটা আমার থেকে সোনালী কেড়ে নিয়ে রিসিভ করে বলতে লাগলো ,
এই কেরে তুই ডাইন তুই অন্য জনের স্বামীর সাথে কথা বলিস !


তুমি কে বলছো ?
আমি শেখরের বউ । আর তোর লজ্জা করে না আমার স্বামীর সাথে কথা বলতে !
এই কথা বলার পর সোনালী ফোনটা কেটে দেয় ।
ওর সাথে খারাপ ভাবে কথা বলার তোমার সাহস কী করে হল ।


ঠাস করে সোনালীর গালে থাপ্পড় বসিয়ে দিয়েই চলে কেন যাচ্ছিস না আমার জীবন থেকে তারপর আমি আমাদের বাসা থেকে বেরিয়ে রিয়ার বাসায় গেলাম ।
রিয়াদের বাসার দরজা খোলাই ছিল তাই বাসার ভিতরে যেতে কোন অসুবিধা হলো না আমার । রিয়াদের বাসায় ভিতরে গিয়ে দেখি রিয়া তার বাবার সাথে ফোনে কথা বলছে ।

হ্যাঁ বাবা কাজ হয়ে গেছে । শেখর সোনালীকে ডিভোর্স দিয়ে দিবে তারপর আমি শেখর একে বিয়ে করে ওর সমস্ত সম্পত্তি আমার নামে করে ওকে মেরে ফেলবো ।
রিয়া ফোনে কথা বলতে বলতে হঠাৎ পিছনে তাকিয়ে আমাকে দেখে ফোনটা কেটে দিয়ে বলতে লাগলো…
ত তুমি এখানে ? (To bundhura amader ajker Jor kore biye really heart touching love story in bengali golpo ta kamon hoyeche niche comment kore janaben)


হ্যাঁ আমি ! এখানে না আসলে তো তোর আসল রূপ দেখতে পেতাম না তাই না ।
তারপর আমি ঠাস ঠাস করে রিয়ার গালে দুইটা থাপ্পড় দিয়ে সেখান থেকে চলে যাই । রাস্তা দিয়ে হেটে হেটে আমার বাসার উদ্দেশ্যে যাচ্ছি । কি বড় ভুলটাই করতে যাচ্ছিলাম আমি ।

আমি আজকেই সোনালীর কাছে মাফ চেয়ে সোনালীকে বুকে টেনে নেবো । কিন্ত সোনালী কি আমাকে মাফ করবে ভূল যা হবার হবে । সোনার কাছে মাফ চেয়ে দেখি আমার বিশ্বাস সোনালী আমাকে মাফ করে দিবে ।

শিক্ষানীয় এক মজার গল্প

শিক্ষনীয় গল্প, শিক্ষনীয় মজার গল্প, হাসির শিক্ষনীয় গল্প, সুন্দর শিক্ষনীয় গল্প, শিক্ষনীয় বড় গল্প, শিক্ষনীয় ঘটনা, শিক্ষনীয় গল্প বাংলা, বাচ্চাদের শিক্ষনীয় গল্প, বাংলা শিক্ষনীয় গল্প, শিক্ষনীয় ইসলামিক গল্প, ইসলামিক শিক্ষনীয় ঘটনা, বাংলা ইসলামিক শিক্ষনীয় গল্প,
শিক্ষনীয় গল্প


এইসব ভাবতে ভাবতে আমি বাসায় এসে সোনালীকে বাড়ির সব জায়গায় খুঁজি কিন্তু কোথাও পাইনি,
কিরে আমি সোনালীকে খুজছিস ! মা বলে উঠলো ?
হ্যাঁ মা সোনালী কোথায়?
সোনালী তার বাবার বাড়ি চলে গেছে যাওয়ার আগে সমস্ত কিছু বলে গেছে । এখন তুই খুশি তো তোর পথের কাটা তো পরিষ্কার এখন যা ওই বাজে মেয়েটাকে গিয়ে বিয়ে কর । ( heart touching love story in bengali language )


মা তুমি আমাকে মাফ করে দাও আমার ভুল আমি বুঝতে পেরেছি আমি যাচ্ছি মা’ সোনালীকে ফিরিয়ে আনতে ।
তারপর আমি সোনালী র বাসার উদ্দেশ্যে যেতে লাগলাম । সোনালী দের বাসায় যেতে রাত হয়ে যায় । সোনালী বাসায় পৌঁছে কলিংবেল বাজানোর কিছুক্ষণ পর সোনালী এসে দরজা খুলে আমাকে দেখতে পেয়ে বলতে লাগলো…

তুমি আর এখানে কেন এসেছো চলে যাও।
আমি তখন সোনালীর দুই হাত ধরে বললাম আমাকে মাফ করে দাও ‌। আমি আমার ভুল বুঝতে পারছি ।
সোনালী ঠাস ঠাস করে আমার গালে থাপ্পড় বসিয়ে দিয়ে বলতে লাগলো,
তোর সাহস কি করে হয় আমাকে টাচ করা । তোর সমস্ত অপমান অত্যাচার মুখ বুজে সহ্য করেছি । কিন্তু আর না । চলে যা আমি তোকে কখনো মাফ করবো না । (To bundhura amader ajker Jor kore biye really heart touching love story in bengali golpo ta kamon hoyeche niche comment kore janaben)


তারপর সোনালী দরজা বন্ধ করে দে তারপর আমি মন খারাপ করে গাড়ি নিয়ে আমার বাসায় আসার সময় হঠাৎ বড় ট্রাক এর সাথে আমার গাড়ির ধাক্কা লাগে ।
তারপর আমার আর কিছু মনে নেই যখন আমার জ্ঞান ফিরে তখন দেখি আমি হাসপাতালে আর আমার পাশে সোনালী বসে আছে । আমি সোনালীকে দেখতে পেয়ে কষ্ট করে বেড থেকে উঠে সোনালী কে জড়িয়ে ধরি ।


প্লিজ সোনালী আমাকে মাফ করে দাও আমি আমার নিজের ভুল বুঝতে পেরেছি আমি আর তোমাকে কখনো কষ্ট দেবো না । প্লিজ শেষবারের মত মাফ করে দাও ।
কি করছো ছাড়ো তুমি অসুস্থ তো।
আগে তুমি বলো আমাকে মাফ করেছ তো ?

really heart touching love story in bengali


আচ্ছা হ্যাঁ মাপ করছি ।
তারপর আমি সম্পূর্ণ সুস্থ হলে আমাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয় । রাতে আমি আর সোনালী পাশাপাশি বিছানায় শুয়ে আছি । হঠাৎ সোনালী বলতে লাগলো ।
ওই শুনো !
কি হয়েছে মহারাণী ?


আমার না একটা চাই !
কি চাই শুধু একবার বলো ।
আমার বলতে লজ্জা করছে তো ।
আরে বলোনা আমার কাছে লজ্জা কি?
এই শোনো না আমার একটা বেবি চাই । ( heart touching love story in bengali language )

এই বলে সে আমার বুকে লুকানো । দেখতে দেখতে এক বছর হয়ে গেল আমার আর সোনালীর বিয়ে হয়েছে । এখন সোনালী গর্ভবতী । তার পেটে আমার সন্তান। সোনালিকে এখন অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ।


আমার যদি কোন কিছু হয়ে যায় তাহলে আমার সন্তানকে ভালো ভাবে মানুষ করবে কথা দাও ।
তুমি এসব কি বলছ তোমার কিচ্ছু হবে না।
তারপর সোনালীকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হলো অপারেশন শেষে ডাক্তার অপারেশন থিয়েটার থেকে বের হয়ে আমাকে বলতে লাগলো…
আপনার ছেলে হয়েছে ।


কিন্তু ডাক্তার সোনালী কি ঠিক আছে তো?
ডাক্তারবাবু কিছুক্ষণ চুপ থেকে তারপর বলল,
সরি শেখর আমরা তাকে বাঁচাতে পারিনি সে আর নেই । (To bundhura amader ajker Jor kore biye really heart touching love story in bengali golpo ta kamon hoyeche niche comment kore janaben)


এই কথাটা শুনে আমার বাঁ পাশটা সরে গেল । আমি জরে চিতকার দিয়ে কান্না করতে করতে ভিতরে গিয়ে সোনালীর হাত ধরে বলতে লাগলাম ।
চোখ খোলো সোনালী এইতো আমি এসে গেছি একটিবার চোখটা খুলো তুমি !
কিন্ত সোনালী আর চোখ খুলবে না চিরদিনের জন্য ঘুমিয়ে পড়েছে যে ঘুম আর কোনদিন ভাংবেনা ….

এই দেখতে দেখতে পাঁচ বছর হয়ে গেছে আমি সোনালীর স্মৃতি বুকে নিয়ে বেঁচে আছি । আর আমাদের ছেলে অনেক বড় হয়ে গেছে ।
বাবা বাবা আমার মা নেই কেন ?( heart touching love story in bengali language )


তোমার মা আছে তো ! কিন্তু আমাদের থেকে অনেক দূরে আছে।
আমি জানি বাবা মা মারা গেছে কিন্তু তুমি এখনো কেন বিয়ে করনি কেনো ? তুমি কি এখনো মাকে ভালোবাসো ?
নিজের চার বছরের ছেলের মুখে এমন কথা শুনে চোখের জল আর আটকাতে পারলাম না ।
আমার ছেলে শুভকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরে হাউমাউ করে কান্না করতে থাকি আর বলতে লাগলাম,
হ্যাঁ বাবা খুব ভালোবাসতাম রে তোর মাকে আমি ।

তো বন্ধুরা Jor kore biye really heart touching love story in bengali 2022 golpo টি এখানে শেষ করলাম। আমাদের আজকের সুন্দর heart touching love story bangla গল্পটি আপনাদের কেমন লেগেছে অবশ্যই নিচের কমেন্ট করে জানাবেন । আর নিয়মিত এরকম বাংলা heart touching short stories in bengali পেতে আমাদের সাথে থাকবে।

গল্প টি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন

1 thought on “Jor Kore Biye heart touching love story in bengali 2022”

Leave a Comment