best cute short romantic love story bangla 2021

romantic love story bangla

Hallo friend ajker alochonar bisoy hochhe best cute short romantic love story bangla te . Ajke ekta dustu misti romantic love story in bengali golpo 2021 dekhte thakun . Are amader comment kore janaben ajker valobasar romantic story ti kamon hoyeche .

romantic love story bangla, romantic love story, romantic love story in bengali, best love story, cute love story,
romantic love story bangla

শুভ, শোনো তুমি যদি 10 মিনিটের মধ্যে আমার বাসায় না আসো তাহলে আমি ছাদ থেকে লাফ দিব আমার মৃত্যুর জন্য শুধুমাত্র তুমি দায়ী থাকবে ।


এখন রাত দশটা বাজে আমি ওয়াশরুমে থেকে বের হয়ে এই মেসেজ দেখে হঠাৎ চমকে গেলাম । যতটানা চমকে যে তার থেকে বেশি ভয় পেয়েছে ।

নীলার সাথে চার দিন থেকে কোনো যোগাযোগ নেই । ঝগড়ার পর এই প্রথম মেসেজ দিয়েছে ।

romantic love story

আমি কম করে হলেও তাকে মোটামুটি 100 বার ফোন করেছি । চার দিনে 200বার মত এসএমএস দিয়েছি নীলা একটা মেসেজের উত্তর আসেনি । সে একবার কল রিসিভ করেনি করেনি সে এতটাই আমার উপরে অভিমান করেছিল ।


আর আজ চারদিন পর মেসেজ দিল তাতে আবার এই কথা লেখা আমি 30 মিনিটের মধ্যে না গেলে সে নাকি ছাদ থেকে লাফ দেবে ।


আমি তার মেসেজটা কয়েকবার পড়লাম । নীলা কি দুষ্টুমি করে মেসেজটা দিয়েছে ? নাকি মজা করার জন্য জানার জন্য সাথে সাথে নীলাকে ফোন দিলাম ফোন বন্ধ আবার ফোন দিলাম বন্ধ কয়েকবার ট্রাই করলাম প্রতিবারই ফোনটা বন্ধ বললো । (romantic love story in bengali )


আমি ম্যাসেজ আসার সময় লক্ষ্য করলাম 5 মিনিট আগে এসেছিল । তার মানে হাতে এখনো 25 মিনিট সময় আছে । এখন আমি কি করব চারদিন আগে বিকেলে নীলাকে ফোন দিয়ে বলল,


তোমার সাথে আমার অনেক জরুরি কথা আছে ।
কি বলো আমি শুনছি?
এই কথা ফোনে বলা যাবে না তুমি আমার সাথে দেখা করো । আমাদের পছন্দের সেই জায়গায় আসছি তুমি যত দ্রুত পারো চলে এসো ।

romantic love story in bengali

আমি এখন অফিসে আছি সন্ধার পরে দেখা করি কি বল?
তখন নীলা রেগে গিয়ে বলল –
না তোমাকে এখনি দেখা করতে হবে! তুমি এখনই আসবে ।


আমি এরকম কথা শুনে বুঝতে পারলাম যে নীলার মেজাজ মনে হয় খুব খারাপ। এখন কথা বাড়ালে শুধু শুধু ঝগড়া হবে । তাই আমি বললাম ,
আচ্ছা ! তবে আমি আসছি, তুমি অপেক্ষা করো ।


নীলা আচ্ছা বলে ফোনটা রেখে দিল । নিলা কখনো এভাবে দেখা করার কথা বলেনি কি হয়েছে ? তার বাসায় কি কোনো সমস্যা হয়েছে এসব ভাবতে ভাবতে অফিস থেকে বের হলাম। ( Romantic story )


এদিকে বাবার কথামতো গত মাসে ব্যাংক এ জয়েন করেছি। পাঞ্জাব ব্যাঙ্ক কলকাতা। বাবার সাথে এক অফিসে কাজ করতে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে মাঝে মাঝে বাবা এসে দেখে যায় কি করিস । খুবই বিরক্ত কর একটা বিষয় ।


আমি ছোটবেলা থেকে বাবাকে খুব ভয় করি । পড়তে বসতাম আমি মায়ের কাছে যদিও বা কখনো বাবা নিয়ে বসতেন সব পড়া আরও গুলিয়ে যেত । সেজন্য মার খেয়েছি বাবার কাছেও অনেক ।

most romantic love story in bengali

পৌঁছে দেখি নীলা বসে আছে এক কোণে তখন নীলা এর কাছে গিয়ে জিজ্ঞেস করলাম ।
সবকিছুকে ঠিক আছে তোমার কি কোনো সমস্যা হয়েছে?


নীলার মুখ দেখে আমি বুঝলাম কিছুতো একটা হয়েছে । মেজাজটা খারাপ । সে কোন কথা বলছে না আমি আবার জিজ্ঞেস করলাম ।
কি হল কথা বলছো না যে?


নীলা আরো কিছুক্ষন চুপ করে থেকে অবশেষে বললো ,
ভালোবাসো ? তুমি আমাকে ভালোবাসো?
এই কথা শুনে আমি অনেকটা অবাক হলাম তাকে বললাম হঠাৎ এই প্রশ্ন?


সত্যি করে উত্তরটা দেবে আমাকে ভালোবাসো ?
তোমার কি কোন সন্দেহ আছে ?
আমাকে তুমি বিয়ে করবে? (Romantic love story bangla )


তখন আমি কিছুটা রেগে বললাম তোমার কি মনে হয় আমি তোমাকে কষ্ট দিয়ে অন্য কাউকে বিয়ে করবো ? তুমি জানো , তোমাকে আমি কতটা ভালোবাসি তোমাকে ছাড়া অন্য কাউকে বিয়ে করার কথা আমি ভাবতেও পারি না ।

romantic story

Romantic love story
romantic love story

নীলার এখনো মেজাজ খারাপ তার সাথে মনটাও খারাপ । আমি আবার তাকে বললাম ,


তোমার কি বাসায় কিছু হয়েছে ?বিয়ের জন্য কি তোমাকে পেশার দিচ্ছে ?
তখন মেয়েটা খুবই রাগী কন্ঠে বলেছে তুমি বাবাকে বলেছ আমার কথা?
আমি মাকে বলেছি । মা বাবাকে বলবেন কোন কারণে কয়দিন ধরে বাবার মেজাজ খারাপ তাই মা বলতে সাহস পাচ্ছে না ।


তুমি তোমার বাবাকে বলতে পারো না যাকে ভালোবাসো তার কথা সাহস করে নিজের বাবাকে বলতে পারোনা ! তাহলে তোমার কি রকম ভালোবাসো ?


নীলা খুব জোরে কথাগুলো বলল । তৎক্ষণাৎ আশেপাশের মানুষ আমাদের দিকে তাকিয়ে থাকলো । তখন আমি নীলাকে বুঝিয়ে বললাম ,
তুমি ভালো করেই জানো যে আমি বাবাকে প্রচন্ড ভয় পাই ।


তুমি যখন এতই ভয় পাও তখন নিজেকে পুরুষ ভাবতে লজ্জা করে না ?
নীলা এটা কিন্তু বেশি বাড়াবাড়ি হয়ে যাচ্ছে । শান্ত হও ।

romantic short story

না আমি শান্ত হবোনা আজকের রাতের মধ্যে তোমার বাবাকে আমাদের কথা বলবে যদি না বলো তাহলে আমাদের সম্পর্ক আজ থেকে এখানেই শেষ ।


এটা বলে নীলা সেখান থেকে চলে গেলো আমি একা একা ওখানে কিছুক্ষণ বসে রইলাম । প্রায় রাত্রি দশটা ফোনটা রিসিভ করার পর নীলা প্রথম কথা ছিল,


তুমি কি বাবাকে আমাদের কথা বলেছো?
তখন আমি কিছুটা ভয়ে ভয়ে উত্তর দিলাম বাবার মেজাজ আজকে অনেকটা খারাপ ছিল তাই ভয়ে কিছু বলিনি বাবার মেজাজ ঠান্ডা হোক তখন বলব প্লিজ একটু বোঝার করো । (romantic love story bangla )


এটা শোনার পর নীলা 4-5 মিনিট কিছুই কথা বললা না আমিও কিছু বললাম না ।
তার কিছুক্ষণ পর নীলা বললো তুমি আমাকে আর কখনো ফোন দেবে না কখনো মেসেজ দেবেনা ‍?


নীলা খুব শান্তভাবে এই কথাগুলো বলবো আমি কিছু বলার আগেই সে ফোনটা কেটে দিল ফোনটা কেটে দেওয়ার পর আমি কয়েকবার ফোন দিয়েছি তাকে ‌। কিন্তু সে ফোনটা রিসিভ করেনি ভেবেছি রাগ কমে যাবে । তাই সকালে আবার তাকে কল দিব ‌।

romantic short story in bengali

কিন্তু গত চারদিন ধরে সে আমার মেসেজ বা কল এর রিপ্লাই দেয়নি অবশেষে প্রচন্ড রেগে নীলাকে মেসেজ বা ফোন দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছি যখন রাগ কমবে নিজে থেকে ফোন দেবে এই আসার অপেক্ষা করছি আমি ।


তারপর তৎক্ষণাৎ নিল আর সেই পাঠানো মেসেজ টা আবার আমি পড়লাম ঘড়ির সাথে তাল মিলিয়ে দেখলাম 30 মিনিট থেকে 10 মিনিট চলে গেছে হঠাৎ বুকটা কেঁপে উঠল ।


নীলা যদি সত্যি সত্যি এমন কিছু করে বসে, তবে আমার কি হবে কিছুই ভাবতে পারছি না । বাসায় এই মুহূর্তে কেউ নেই ।


সন্ধ্যার দিকে সবাই একটা অনুষ্ঠান বিয়ে বাড়িতে গেছে । আমাকে অনেক পরে বলেছে যেতে কিন্তু আমি যাই নি । এখন কি করব চিন্তা ভাবনা এলোমেলো হয়ে যাচ্ছে। ঠান্ডা মাথায় কিছু ভাবতে পারছিনা ‌। শুধু নীলার কথাই মনে পড়ছে।

দ্রুত একটা প্যান্ট আর একটা টি-শার্ট পরে দরজা খুলে বাইরে বের হলাম । স্যান্ডেল খুঁজে পাচ্ছিনা। খুঁজতে গিয়ে সময় নষ্ট না করে বাসা থেকে বেরিয়ে রাস্তায় আসলাম। রাস্তায় কোন বাস ও রিকশা কিছুই নেই গুরুত্বপূর্ণ সময় কিছুই ঠিকমতো পাওয়া যায় না এটা আপনারা জানেনই ।

best romantic love story

হিসাব করে দেখলাম এখান থেকে নীলাদের বাসায় হেটে গেলে 50 মিনিট লাগবে । দূরে গেলে 30 মিনিট । আমার হাতে সময় আছে কুড়ি মিনিট এখন কি করা যায়?


তখন আমি বাস বা রিক্সা কার জন্য অপেক্ষা না করে দৌড়াতে লাগলাম । খালি পায়ে দৌঁড়াতে দৌঁড়াতে মনে মনে প্রার্থনা করতে লাগলাম নীলার যাতে কিছু না হয় । নীলা যাতে কোনো পাগলামি না করে । হঠাৎ কিছু একটা পায়ে বেঁধে পড়ে গেলাম ।

তখন আমার হাঁটু কিছুটা কেটে গেল সামান্য ব্যথা অনুভব করল তবে ব্যথাকে গুরুত্ব দেওয়ার সময় আমার হাতে নেই দৌড়চ্ছি শুধু দৌড়চ্ছি । ( Romantic love story bangla )


তখন হাতের ঘড়ির দিকে তাকালাম সময় শেষ নীলা মেসেজে বলেছিল 30 মিনিটের মধ্যে ওর বাসায় না গেলে ও ছাদ থেকে লাফ দিবে ।


মেসেজ পেয়ে অন্য কিছু না ভেবে আমি সোজা বাসা থেকে বেরিয়ে ওর বাড়ির উদ্দেশ্যে দৌড়ে যাচ্ছে এত রাতে বাঁচার জন্য অপেক্ষা করা তাই । নীলাকে ছাদ থেকে লাফ দিয়ে দিয়েছে নাকি?


তখন আমি মনে মনে প্রার্থনা করলাম মিলা আমাকে আর দশটা মিনিট সময় দাও । আমার আসতে মাত্র 10 মিনিট লাগবে । প্লিজ নীলা পাগলামি কোরো না তোমার কিছু হয়ে গেলে আমি একা কি করে বাঁচবো ?

best romantic love story in bengali

পা থেকে রক্ত বেরোচ্ছে প্যান্টের সাথে রক্ত জমাট বেঁধে ব্যথা কমছে তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে হাপিয়ে গেছে দৌড়ানোর শক্তি নেই তবুও আমার কিছু করার নেই?


নীলাকে এই বিপদ থেকে রক্ষা করতে আমাকে একটু তো কষ্ট করতেই হবে । নীলাদের বাসায় পৌঁছে সাথে সাথে সিড়ি বেয়ে ছাদে চলে এলাম । উঠতে উঠতে মনে হয়েছিল পায়ের হাড্ডি ভেঙ্গে যাচ্ছে ছাদে উঠে এদিকে তখন নীলাকে খুজতে লাগলাম ।


ছাদের এদিক থেকে ওদিক কোন দিকেই চেনেই আমি ছাদ থেকে নিচে তাকালাম । তাকাতে তাকাতে পুরো জায়গাটা ভালো করে দেখলাম কোথাও নীলা নেই ?


তখন আমার মাথা সম্পূর্ণ এলোমেলো হয়ে গেল বুকের এক পৃষ্ঠে গলা শুকিয়ে অবশেষে চোখ দিয়ে কয়েক ফোটা পানি গড়িয়ে পড়ল নিচে আমিও ছাদে বসে রইলাম?


আমি ব্যর্থ জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজে? আমি অনেক ব্যর্থ? আমি কিছুই ভাবতে পারছি না । চোখ দিয়ে অনবরত বুলেট বৃষ্টি হচ্ছে কি হবে এখন কি হবে ? আমি এই কষ্ট বুকে চেপে রেখে কিভাবে বাঁচব ?

romantic love story reading

কিছুক্ষণ পর হঠাৎ ছাদের গেট দিয়ে কারো প্রবেশ করার শব্দ পেলাম । কেউ একজন ছাদে আসছে । আমি কোথায় যাবো ? কি করবো পর মুহূর্তে নীলাকে ছাদে রেখে দূরে গিয়ে জাপটে ধরলাম । জড়িয়ে ধরার সাথে সাথে খুশি তে কান্না পেয়ে গেল । কান্না চেপে রাখতে না পেরে কেঁদে দিলাম ।


তখন তাকে অনেকক্ষণ জড়িয়ে ধরে আমি কাঁদলাম । তবে এই মুহূর্তে পৃথিবীর সবচেয়ে খুশি মানুষ কেউ হলে সেটা আমি ? শুধুই আমি ? তবে আমি কি জানতাম এই পরমুহূর্তে নীলাকে দেখে সবচেয়ে অখুশি মানুষটা সেটা আমি হব !

নীলা কিছুক্ষণ পর রেগে বলল ,
প্লিজ শুভ একটু শান্ত হও । এভাবে ছাদের মধ্যে আমাকে জড়িয়ে ধরে থেকো না ‌। বাসায় অনেক লোকজন । হঠাৎ কেউ ছাদে চলে আসলে বিরাট সমস্যা হয়ে যাবে ।


তখন আমি আমার বুক থেকে তাকে মুক্ত করে একটু দূরে সরে গেলাম নীলা ভালো করে দেখে আমার মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়ল ‌। পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গেলো । আমি যেন তলিয়ে যাচ্ছি । নীলাকে তখন প্রশ্ন করলাম,
তুমি এই পোশাকে ?


তখন নীলা উত্তর দিল আজকে আমার বিয়ে?
তখন আমার বুকের এক পাশটা ভেঙে গেল ।

romantic love story in bangla

Chhota golpo, romantic love story in bengali
romantic story-chhota golpo

আমি আর কথা বলার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি আমার স্বপ্ন গড়া দুনিয়া ধীরে ধীরে ধ্বসে পড়েছে, ভেঙে যাচ্ছে । বাকরুদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে রইলাম ! নীলার আজকে বিয়ে । নীলা বললো,


প্লিজ তুমি কোন আর পাগলামি করবে না । প্লিজ !

নিস্তব্ধতায় আমাদের কেটে গেল অনেকটা সময় । আমি নীলাকে কিছুই বললাম না । হাঁটুর ব্যথার তীব্রতা দাঁড়িয়ে থাকতে না পেরে বসে পড়লাম । কোনরকমে উঠে দাঁড়িয়ে হারাতে হারাতে নাটক হাঁটা শুরু করলাম । নীলা যেখানে ছিল, সেখানেই দাঁড়িয়ে রইল ।


ছাদ থেকে নামার মুহূর্তে নীলা দৌড়ে আমাকে এসে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরল খুব জোরে । আমি ফিরে তাকালাম না । আমি চাই না নীলা কে আমার চোখের জল দেখাতে। নীলা আরো শক্ত করে জড়িয়ে ধরলো । তখন আমি রেগে বললাম ,


তুমি এটা কি করছো? কেউ দেখে ফেলবে । তোমার বিয়েটা ভেঙে যাবে ?
নিলা কোন উত্তর দিল না । শুধু জড়িয়ে ধরে থাকলো । নীলা কি কান্না করছে ? অবশেষে ঘুরে তাকালাম আমার মেয়ের মুখ ভর্তি বৃষ্টি । নীলার চোখ থেকে পানি মুছিয়ে দিলাম । আবার সে আমাকে জড়িয়ে ধরে বলল,

ভালবাসি, ভালবাসি ,আমি শুধু তোমাকেই ভালবাসি?
আমি অবাক হয়ে তার দিকে শুধু চেয়ে রইলাম । নীলা পাগলামি করছে কেন ! যা হবার তা তো হয়ে গেছে এখন কি কিছু করার সুযোগ আছে? তখন নীলা বললো,


তোমার পায়ে কি হয়েছে ।খুড়িয়ে খুড়িয়ে হাঁটছো দেখি কি হয়েছে ।
সে হাঁটু গেড়ে বসে পা দেখে চমকে উঠলো আর বলল –
এতটা কেটে গেছে! কিভাবে? আর তুমি খালি পায়ে বা কেন? পায় কি অবস্থা করেছে বলতো রক্ত বের হচ্ছে তো !

new romantic love story bangla

তার কাছে অনেকগুলো প্রশ্ন আছে । তবে এখন এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে এইসব প্রশ্নের অর্থহীন তাই বললাম,
বাদ দাও । যা হবার তো হয়ে গেছে । এখন এইসব অর্থহীন ।


তখন নীলা রেগে গিয়ে বলল কোন কিছু অর্থহীন না বলো কি হয়েছে তোমার ! কি করে হলো এসব?
প্রশ্নগুলো উত্তর শুনতে গেলে তোমার বিয়ের সময় পার হয়ে যাবে । আর আমি বলতে চাই না, তুমি চলে যাও বাসায় যাও । তোমার জন্য সবাই অপেক্ষা করছে ।


আমি যাবার জন্য ঘুরে যেতেই নীলা আবার আমাকে জরিয়ে ধরল খুব শক্ত করে । আমার খুব কাছে এসে কানে কানে ফিসফিস করে বলল,
এই যে মিস্টার তুমি চলে গেলে বিয়ে হবে কার সাথে?


আজ আমার বিয়ে ঠিকই কিন্তু তবে তুমি চলে গেলে বিয়েটা হবে কার সাথে শুনি?


এইসব নীলার বলা কথাগুলো আমার কিছুতেই বুঝতে পারছিনা সে কি বলছে । ঘন্টাখানেক আগে মেসেজ দিয়ে বলল 30 মিনিটের মধ্যে আমাদের ছাদে না আসলে সে ছাদ থেকে লাফ দিবে । আমি 30 মিনিটের মধ্যে দৌড়ে নীলাদের ছাদে এসে কাউকে দেখিনি ।

cute romantic love story in bangla

কিছুক্ষণ পর নীলা বিয়ের পোশাকে ছাদে এসে বললো “আজকে আমার বিয়ে” । আবার আমি চলে যাব এই মুহূর্তে বললো তুমি চলে গেলে বিয়ে হবে কার সাথে ? নিজেকে পাগল পাগল লাগছে । নীলা একেক সময়ে একেক রকম কথা কেন বলছে ?

এই প্রথম তার ওপরে এতটা রাগ উঠছে এইসব কথা বলার জন্য তখন রেগে গিয়ে নীলা কে জিজ্ঞাস করলাম,


কি হচ্ছে এসব ? আমাকে কি একটু ক্লিয়ার করে বলবে? আমি তোমার কথা কিছুই বুঝতে পারছি না । সত্যি এখন নিজেকে পাগল পাগল লাগছে । অসহায় লাগছে ।


তখন নীলার মুখে সেই চেনা পরিচিত হাসি দেখে আমার খুব ভাল লাগছে । এই মানুষটা অদ্ভুত । মেঘ মুখের হাসিটা খুবই অসাধারণ আর তাকে বিয়ের শাড়িতে অপূর্ব সুন্দরী লাগছে বাকরুদ্ধ হওয়ার মত সুন্দর সুন্দর । তখন সে হাসি দিয়ে বলল ,


আজকে তোমার সাথে আমার বিয়ে তুমি চলে গেলে বিয়ে হবে কিভাবে?
তখন আমি অবাক হয়ে বললাম-আমার সাথে? a romantic love story in bengali ti kamon hoyeche kamon comment kore janaben .


ওই রাতে তোমার সাথে ঝগড়া করে ফোন কেটে দেওয়ার পর , আমি কষ্টে সারারাত ঘুমাতে পারিনি । অনেক কান্না করেছি । তোমার প্রতিটা ম্যাসেজের উত্তর দিতে ইচ্ছা হয়েছে ।


তখন আমি ভোর রাতে নিজেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে তোমাদের বাসায় গিয়ে বাবা মার সাথে আমি নিজে কথা বলব ।


পরের দিন অনেক ভেবেছি কি করব , বাসায় যাওয়ার পর কীভাবে কী বলবো । তোমার মা সবটা জানতেন । তাই তোমার মাকে নিয়ে কোনো ভয় ছিল না । ভয় ছিল তোমার বাবাকে নিয়ে,


বাবা কি ভাবে রিয়েক্ট করেন সেটা নিয়ে । তবুও আমাকে তো কাজটা করতেই হবে । তোমাকে ছাড়া আমি অন্য কাউকে বিয়ে করলে মরে যাব। আমি অন্য কাউকে ভালবাসতে পারব না ।


তারপরে তৃতীয় দিন বিকালে তোমাদের বাসায় যাই । তুমি তখন বাসায় ছিলে না । আমি জানতাম তুমি এই মুহূর্তে বাসায় থাকবে না । আর আমি চেয়েছিলাম তোমাকে সারপ্রাইজ দিতে তাই আগে থেকে কিছু জানাইনি ।


বাসায় গিয়ে মার সাথে প্রথম দেখা । মাকে সব খুলে বলি । তোমার বোন বাসায় ছিল । সেও জানতো, বাবাকে ফোন দিয়ে মা বাসায় আসতে বলেন । তোমার বাবা বাসায় আসার পর প্রথমে ভয়ে ছিলাম । কিন্তু তোমার বাবা বললেন ভয় নাই যা বলতে এসেছো বল । আমি সবটা উনাকে বলি ।


আমাদের রিলেশনের কথা তোমার উনাকে আমাদের কথা বলতে না পারার কথা । তোমার বাবা খুবই ভালো মানুষ। তুমি শুধু শুধু ভয় পাও । বাবা সবটা শুনে কোন দ্বিধা করেনি । সাথে সাথে রাজি হয়ে গেছেন ।


সেদিনই তোমাকে সবটা জানাতে চেয়েছিলাম সেই দিলি তোমাকে সারপ্রাইজ দিতে চেয়েছিলাম তবে তোমার বোন সবার সামনে হুট করে বলে উঠলো ভাইয়াকে বড় একটা শাস্তির সারপ্রাইজ দিতে হবে ।

তারপর থেকে এই মুহূর্তে যা যা ঘটল তার সবটাই তোমার বোন অনামিকার প্ল্যান। তোমার মা বাবা গতকাল ফোনে আমার মা বাবার সাথে কথা বলেছে । আমার মা-বাবা দ্বিমত করেননি সবাই রাজি তাই আজ পারিবারিকভাবে বিয়েটা হবে । পরে অনুষ্ঠান করা হবে। romantic love story status bangla ta sompurno romantic golpo ta kamon hoyeche .


হঠাৎ অনামিকা আমাদের ডাকতে আসলো বললো,
এই যে ভাইয়া আর কত সময় থাকবে বলতো ছাদে ! তাড়াতাড়ি নীচে এসো আমরা সবাই অপেক্ষা করছি ।


তখন আমি আমার বোনকে বললাম তোর খবর আছে আজকে বিয়েটা হোক তারপর দেখাচ্ছি তোকে ?


ইশ, আমি সবকিছু ম্যানেজ করলাম । কোথায় খুশি হয়ে আমাকে উপহার দিবে, তা না এখন বলছে আমার খবর আছে ! আচ্ছা আচ্ছা এখন তো নিচে এসো সবাই অপেক্ষা করছে ।


এই বলে অনামিকা নিচে চলে গেল । আমি নীলাকে জড়িয়ে ধরে বললাম ।
জানো, তুমি আজকে আমি কতটা খুশি ?
তোমার থেকে আমি বেশি খুশি ।
আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি


আমার থেকে বেশি না ।
তখন নীলা আমাকে ছেড়ে দিয়ে বলল তোমার পায়ের অবস্থা ভালো না কেউ পাগলের এভাবে পাগলের মতো আসে ? কি করেছে নিজের খেয়াল আছে ?
আমি তখন হেসে বললাম আরে পাগলি আমি যে তোমাকে বড্ড ভালোবাসি ?

হয়েছে, এবার চলো । নিচে গিয়ে আগের ড্রেসিং করে ব্যান্ডেজ করে দিই । তারপর ফ্রেশ হয়ে পাঞ্জাবি পড়বে ।
বাহ, সবকিছুই প্রস্তুত ?
জি হ্যাঁ , শুধু তোমারি এই অবস্থা । আসো , নিচে আসো ।


এই বলে যখনই নিলা চলে যাচ্ছিল । তখন আমি তার হাতটা টেনে নিজের কাছে নিয়ে এসে বললাম,
আজকে সম্পূর্ণভাবে আমার হয়ে যাচ্ছে তাহলে ।

হয়েছে তোমার । আর আহ্লাদ দেখাতে হবে না । এখনো হয়নি আর হবার পর তোমার কিন্তু খবর আছে ।
এই বলে রাজ রাঙ্গা হয়ে দৌড়িয়ে লজ্জা এসে নীচে চলে গেল ‌ । আমার সেই পুরনো romantic love story bangla কথা মনে পড়ে গেল ।


আমি আকাশের দিকে তাকিয়ে আছি কত রং-এর আঁকা এই আকাশে ।
আজকে আমি নীলাকে যতই দেখছি ততই যেন মুগ্ধ হচ্ছি । কিন্তু আমাকে যদি অনেকগুলো রং ধারণ করেছে তার নীল আকাশে । একটা সৌভাগ্যের শুক্র রেখা উজ্জ্বল হয়ে দেখা দিয়েছে নীলার ললাটে ।তো আপনারা একখানে কি করছেন আমাদের তো বিয়ে হয়ে গেল । আপনারা খাবার খেয়ে খেয়ে যাবেন কেমন ।

To bondu ajker moto ekhane . Ajker romantic love story bangla golpo ti kamon hoyeche obosoy comment kore janaben .

গল্প টি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন

Leave a Comment